প্রথম ম্যাচেই চোটে স্টার্ক, যা বলছেন অজি অধিনায়ক

অনলাইন ডেস্ক : টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপে আজ (বৃহস্পতিবার) নিজেদের প্রথম ম্যাচে খেলতে নেমেছিল অন্যতম পরাশক্তি অস্ট্রেলিয়া। টানা দুটি আইসিসির বিশ্ব ইভেন্টের শিরোপা জেতা দলটির সামনে ছিল তুলনামূলক দুর্বল দল ওমান। ম্যাচটিতে অজিরা অনায়াসে জয়ও পেয়েছে। যদিও তাদের অবস্থান আরও দাপুটে হতে পারত। ১৬৫ রানের টার্গেট দিয়ে ওমানকে ৩৯ রানে হারিয়েছে অজিরা। তবে প্রথম ম্যাচেই চোট পেয়েছেন তারকা পেসার মিচেল স্টার্ক।

যদিও সেটি খুব বেশি চিন্তার কারণ তৈরি করেনি বলে মত অজি অধিনায়ক মিচেল মার্শের। ওমানের ইনিংসের ১৫তম ওভারে প্রথম বলটি ওয়াইড দেন স্টার্ক। সেই বলের পরই তাকে খোঁড়াতে দেখা যায়। ঝুঁকি না নিয়ে মাঠ থেকে বেরিয়ে যান তিনি। সেই ওভার শেষ করার জন্য গ্লেন ম্যাক্সওয়েলকে বল তুলে দেন অস্ট্রেলিয়ান অধিনায়ক। মাঠ ছাড়ার আগে ৩ ওভারে ২০ রানে ২ উইকেট নেন স্টার্ক।

আরও পড়ুনঃ   ছক্কায় ভাঙলেন গাড়ির কাঁচ, সেটাই পেলেন পুরস্কার

স্টার্কের চোট নিয়ে ম্যাচ শেষ হওয়ার পর প্রশ্ন করা হয় মার্শকে। তিনি বলেছেন, ‘পায়ে টান লেগেছিল স্টার্কের। বিশ্বকাপ সবে শুরু। তাই সে কোনো ঝুঁকি নিতে চায়নি। সাবধানতার জন্য মাঠ ছাড়তে চেয়েছিল। আমিও আপত্তি করিনি। উদ্বিগ্ন হওয়ার মতো কোনো চোট লাগেনি তার। তবে ওই অবস্থায় বল করলে বড় চোট লাগতে পারত।’

মাঠ ছাড়ার আগে নিজের স্বভাব সুলভ বল করেছেন স্টার্ক। প্রথম ওভারের তৃতীয় বলেই তিনি এলবিডব্লু’র ফাঁদে ফেলেন ওমানের ওপেনার প্রতীক আথাভালেকে। এরপর ইনিংসের মাঝামাঝিতে আক্রমণে এসে খালিদ কাইলকে ম্যাক্সওয়েলের ক্যাচে পরিণত করেন।

আরও পড়ুনঃ   বাংলাদেশের নতুন স্পিন বোলিং কোচ পাকিস্তানের মুশতাক

তুলনামূলক দুর্বল প্রতিপক্ষ পাওয়ায় এদিন অস্ট্রেলিয়ার দুই ফরম্যাটের অধিনায়ক প্যাট কামিন্স খেলেননি। তার বদলে পেস আক্রমণে স্টার্ক ও জশ হ্যাজলউডের সঙ্গে প্রথমবার বিশ্বকাপ একাদশে সুযোগ পান নাথান এলিস। ৪ ওভারে ২৮ রানের বিনিময়ে তিনিও দুই উইকেট নিয়েছেন। একাদশে না থাকা কামিন্সকে ম্যাচের মাঝে সতীর্থদের জন্য পানি ও তোয়ালে নিয়ে মাঠে ঢুকতে দেখা যায়, যা নিয়ে বেশ মজা পেয়েছেন ক্রিকেটভক্তরা। এখন অস্ট্রেলিয়ার নজর আগামী ৮ জুন ইংল্যান্ড ম্যাচের দিকে।