ফেসবুকে ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি, রেললাইনে মাথা দিলেন কলেজছাত্রী

অনলাইন ডেস্ক : ফেসবুকে ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়ায় লালমনিরহাটের কালীগঞ্জ উপজেলায় রেললাইনে মাথা দিয়ে আয়েশা সিদ্দিকা আঁখি (১৮) নামে এক কলেজছাত্রী আত্মহত্যা করেছেন। বৃহস্পতিবার (৩০ মে) দুপুর ১২টার দিকে উপজেলার তুষভান্ডার ইউনিয়নের টেপাটারি এলাকায় এ দুর্ঘটনা ঘটে।

আয়েশা সিদ্দিকা আঁখি উপজেলার তুষভান্ডার ইউনিয়নের কাশীরাম মেডিকেল মোড় এলাকার আলমঙ্গীর হোসেনের মেয়ে।

স্থানীয়রা জানান, ভোটমারী পন্ডিতপাড়া এলাকার তৌহিদ হাসান নামে এক যুবকের সঙ্গে প্রেমের সম্পর্ক গড়ে ওঠে আঁখির। এরই মধ্যে কয়েকবার ভয় দেখিয়ে টাকা হাতিয়ে নেন প্রেমিক। পরে পরিবার জানাজানি হলে আঁখির মোবাইল নিয়ে নেন তার বড় ভাই। বৃহস্পতিবার সকালে ওই ফোন নিয়ে বাড়ি থেকে বের হয়ে আসেন আঁখি। পরে দুপুর ১২টার দিকে পরিবার জানতে পারে রেললাইনে মাথা দিয়ে আত্মহত্যা করেছেন আঁখি।

আরও পড়ুনঃ   ধান কাটাকে কেন্দ্র করে দুই পক্ষের মধ্যে সংঘর্ষে নিহত ১ আহত ২৫

পরিবারের দাবি, টেপাটারি এলাকায় দুই যুবকসহ আঁখি ছিল। সেখানে দুই যুবকের সঙ্গে ঝগড়া হয়েছে। একপর্যায়ে ট্রেনের শব্দ পেয়ে রেললাইনে মাথা দিয়ে আত্মহত্যা করে আঁখি।

আঁখির বড় বোন আরজিনা আক্তার অভিযোগ করে বলেন, ফেসবুকে ছবি ছড়িয়ে দেওয়ার কথা বলে আমার বোনের কাছে অনেক টাকা নিয়েছে। সকালে ডেকে এনে আমার বোনকে রেললাইনে ব্লাকমেইল করে মেরে মেলেছে। আমি এই হত্যার বিচার চাই।

আরও পড়ুনঃ   বঙ্গবন্ধুর ভাষন ছাড়া পৃথিবীতে কোন রাজনৈতিক নেতার বক্তব্য এত মানুষ মুখস্ত করেনি: আসাদ

কালীগঞ্জ ফায়ার সার্ভিসের স্টেশন কর্মকর্তা আবু তাহের বলেন, ঘটনা শোনার পরেই এসে মরদেহ উদ্ধার করেছি। ফায়ার মরদেহটি রেলওয়ে থানা পুলিশের কাছে হস্তান্তর করা হয়েছে।