দুর্গাপুরে শরীফ, বাগমারায় সান্টু ও পুঠিয়ায় আব্দুস সামাদ বিজয়ী

স্টাফ রিপোর্টার : দ্বিতীয় ধাপে রাজশাহীর তিনটি উপজেলা পরিষদের নির্বাচন অনুষ্ঠিত হয়েছে। বিচ্ছিন্ন ঘটনার মধ্য দিয়ে সারাদেশের ন্যায় রাজশাহীর এ তিন উপজেলার নির্বাচন শেষ হয়েছে। নির্বারিত সময় মঙ্গলবার সকাল ৮টায় ভোট গ্রহণ শুরু হয়, বিরতিহীন ভাবে চল বিকেল চারটা পর্যন্ত।

ভোট গ্রহণ শেষে গণনা শুরু হয়। ভোট গণনা শেষে রাতেই ফলাফল ঘোষণা করেন উপজেলা নির্বাচনের রিটার্নিং কর্মকর্তা।

ফলাফলে দেখা গেছে, দুর্গাপুর উপজেলায় শরিফুজ্জামান শরীফ মোটরসাইকেল প্রতিক নিয়ে ৪২ হাজার ১১৩ ভোট পেয়ে বেসরকারীবে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বী প্রার্থী আব্দুল মজিদ সরদার ঘোড়া প্রতিক নিয়ে পেছেন পেয়েছেন ২৭ হাজার ৩৭২ ভোট।

আরও পড়ুনঃ   চলন্ত ট্রাকের পেছনে ঢুকে গেল সিএনজি, চালক নিহত

বাগমারা উপজেলার চেয়ারম্যান প্রার্থী জাকিরুল ইসলাম সান্টু ঘোড়া প্রতীক নিয়ে ৪৭ হাজার ৩২২ ভোট পেয়ে বেসরকারিভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি প্রার্থী আব্দুর রাজ্জাক সরকার ওরফে আর্ট বাবু আনারস প্রতীক নিয়ে পেয়েছেন ৪ হাজার ৩২১ ভোট। একই সাথে মোটরসাইকেল প্রতীকে নাসিমা আক্তার পেয়েছে ২ হাজার ৬৪ ভোট।

আরও পড়ুনঃ   নগরীতে মাদকদ্রব্য উদ্ধার: গ্রেফতার ১০

এদিকে পুঠিয়া উপজেলায় আব্দুস সামাদ আনারস প্রতিক নিয়ে ২৬হাজার ৬৬৫ ভোট পেয়ে বেসরকারীভাবে বিজয়ী হয়েছেন। তার নিকটতম প্রতিদ্বন্দ্বি আহসান উল হক মাসুদ ঘোড়া মার্কা প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ২৩ হাজার ৬৭৯ ভোট ও জিএম হিরা বাচ্চু মোটরসাইকেল প্রতিক নিয়ে পেয়েছেন ৯ হাজার ৮৭২ ভোট।