হাসান আজিজুল হক সাহিত্য পদক পেলেন ছয় কৃতী

স্টাফ রিপোর্টার : বাংলা সাহিত্যের বিভিন্ন শাখায় গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখার জন্য ছয়জন বিশিষ্ট সাহিত্যিককে ‘হাসান আজিজুল হক সাহিত্য পদক’ প্রদান করেছে রাজশাহী লেখক পরিষদ। শনিবার (৪ মে) সন্ধ্যায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের সিনেট ভবনে হাসান আজিজুল হক সাহিত্য উৎসবের সমাপনী দিনে ছয় গুণিকে- পুষ্প, উত্তরীয়, সনদপত্র, ক্রেস্ট ও অর্থমূল্য প্রদান করা হয়েছে। অনুষ্ঠানে লেখক পরিষদের সভাপতি বীর মুক্তিযোদ্ধা কবি রুহুল আমিন প্রামাণিকের সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি ছিলেন রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য-অধ্যাপক গোলাম সাব্বির সাত্তার।

সমাপনী অনুষ্ঠানে লেখক পরিষদের সহ-সভাপতি আকবারুল হাসান মিল্লাত এঁর সঞ্চালনায় স্বাগত বক্তব্য রাখেন রাজশাহী লেখক পরিষদ সাধারণ সম্পাদক ড. তসিকুল ইসলাম রাজা।

এসময় বিশেষ অতিথি ছিলেন, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. সুলতান উল ইসলাম টিপু, উপ-উপাচার্য প্রফেসর ড. মো. হুমায়ুন কবীর, নিখিল ভারত শিশুসাহিত্য সংসদের সর্বভারতীয় সম্পাদক ও শিশুসাহিত্যিক আনসার উল হক, ভারতের পশ্চিমবঙ্গের কবি সত্যপ্রিয় মুখোপাধ্যায়, চ্যানেল আই সিনিয়র জেনারেল ম্যানেজার শিশুসাহিত্যিক আমীরুল ইসলাম, রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের সভাপতি ও কথাসাহিত্যিক হাসান আজিজুল হকের পুত্র প্রফেসর ইমতিয়াজ হাসান।

আরও পড়ুনঃ   নগরীতে মাদকদ্রব্য উদ্ধার ও বিভিন্ন অপরাধে গ্রেপ্তার ২৫

পদকপ্রাপ্ত গুণিজনরা হলেন- কবি জুলফিকার মতিন (কবিতা), অধ্যাপক গোলাম কবির (প্রবন্ধ সাহিত্য), আখতার হুসেন (শিশুসাহিত্য), ড. কানাইলাল রায় (গবেষণা) ও ফেরদৌস হাসান (কথাসাহিত্য) এবং রাশেদা খালেক (ভ্রমণ সাহিত্য)।
এর আগে উৎসবের দ্বিতীয় দিনে সকাল ৯টায় রাজশাহী বিশ্ববিদ্যালয়ে অনুষ্ঠানের প্রথম পর্বে হাসান আজিজুল হকের সমাধিতে শ্রদ্ধাঞ্জলি অর্পণ করা হয়েছে।

দ্বিতীয় পর্বে সকাল ১০টায় বাংলা একাডেমির পুরস্কারপ্রাপ্ত শিশু সাহিত্যিক আখতার হুসেনের সভাপতিত্বে শিশুসাহিত্য বিষয়ক আলোচনা ও ছড়াপাঠ করা হয়। এ পর্বে স্বরচিত ছড়াপাঠ করেন- সরদার আবুল হাসান, কেশব জিপসী, মুস্তফা আনসারী, নাজনীন সুলতানা নাজ জেমরিনা হক, আব্দুল খালেক, মালেক মাহমুদ, রমজান মাহমুদ ইরশাদ জামিল, ইমরান পরশ, গোলাম নবী পান্না, মাহবুবা ফারুক, আতিক রহমান, জোতির্ময় সেন ও হাসনাত আমজাদ।

আরও পড়ুনঃ   রুয়েটের সাবেক ভিসি ও রেজিস্ট্রারের বিরুদ্ধে দুদকের মামলা

এছাড়াও তৃতীয় পর্বে সকাল সাড়ে ১১টা বিশিষ্ট কথাসাহিত্যিক জাকির তালুকদারের সভাপতিত্বে কথাসাহিত্যিক বিষয়ক আলোচনা এবং চতুর্থ পর্বে দুপুর সাড়ে ১২টায় মুক্ত গদ্যপাঠ অনুষ্ঠিত।
এরপর, দ্বিতীয় অধিবেশনের প্রথম পর্বে বিকেল ৪টায় হাসান আজিজুল হকের সাহিত্য নিয়ে আলোচনা; ২য় পর্বে বিকেল সাড়ে ৫টায় কবিতা পাঠ ও আলোচনা; ৩য় পর্বে সন্ধ্যা ৭টায় ছোটগল্প পাঠ; ৪র্থ পর্বে সন্ধ্যা সাড়ে ৭টায় পশ্চিমবঙ্গের কবিদের কবিতাপাঠ ও আলোচনা অনুষ্ঠিত হয়েছে।