বাঘায় নির্বাচনী দ্বন্দ্বের জেরে দেড় শতাধিক পেঁপে ও লাউ গাছ কর্তন

মোহাঃ আসলাম আলী স্টাফ রিপোর্টার: রাজশাহীর বাঘায় নির্বাচন কেন্দ্রীক দ্বন্দ্বের জের ধরে রবিন নামে এক যুবেকের দেড় শতাধিক পেঁপে ও লাউ গাছ শত্রুতা করে কর্তনের অভিযোগ পাওয়া গেছে। এর মধ্যে অর্ধ শতাধিক পেঁপে এবং অর্ধ শতাধিক লাউ গাছ রয়েছে।

মঙ্গলবার দিবাগত রাতে উপজেলার নিশ্চিন্তপুর মাঠে এই গাছ কাটার ঘটনা ঘটে। এ ঘটনায় রবিন চারজনকে অভিযুক্ত করে থানায় একটি অভিযোগ দায়ের করেন।

সরেজমিন গিয়ে দেখো গেছে, উপজেলার পুর্ব নিশ্চিতপুর গ্রামের আবুল কালামের ছেলে রবিন তার গ্রামে অবস্থিত প্রায় দুই বিঘা জমির চার ধারদিয়ে ৫ হাত পর-পর একটি করে পশতাধিক পেঁয়ে গাছ রোপন করেছেন। একই সাথে জমির চাল পাশের গর্থ (পাগার) এর উপর দিয়ে জাংলা করে অর্ধশতাধিক লাল গাছ লাগিয়েছেন। এসব লাউ গাছে অংসখ্য লাউ ধরে আছে। তবে পেঁপে গাছ গুলো অংকুর (চারার)চেয়ে একটু বড় হয়েছে মাত্র। এ সব গাছের মধ্যে উভয় প্রকার প্রায় শতাধিক গাছ কেটে ফেলা হয়েছে।

আরও পড়ুনঃ   লালপুরে বৃদ্ধের বিরুদ্ধে শিশু ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগ

জমির মালিক রবিন জানান,আমি এ বছর জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আমাদের পাড়া থেকে নৌকার পক্ষে ভোট করে ছিলাম। প্রক্ষান্তরে আমার গ্রামের চারজন প্রতিপক্ষ তারা সতন্ত্র প্রার্থীর কাঁচি প্রতীকে ভোট করেছিলো। কিন্তু নির্বাচনী ফলা-ফলে নৌকা ফাস্ট (প্রথম) হওয়ার কারনে তারা আমার উপর ক্ষিপ্ত ছিলো এবং আমাকে পরবর্তীতে দেখে নিবে বলেও হুমকি দিয়েছিল। আমার বিশ্বাস তারা পুর্ব শত্রুতার জের ধরে রাতের আধারে আমার এই সর্বনাশ (ক্ষতি) সাধন করেছে। নিরুপায় হয়ে আমি থানায় একটি লিখিত অভিযোগ করেছি।

আরও পড়ুনঃ   তানোরে পোষ্ট অফিস থেকে কোটি টাকা গায়েব!

এ বিষয়ে বাঘা থানা অফিসার ইনচার্জ (ওসি) তরিকুল ইসলাম জানান, আভিযোগ পেয়েছি। এ বিষয়ে তদন্ত পুর্বক আইনগত ব্যবস্থা নেয়া হবে।