ইসরায়েলের রাফাতে স্থল অভিযান হবে ‘নজিরবিহীন মানবিক বিপর্যয়’: জাতিসংঘ

অনলাইন ডেস্ক : দক্ষিণ গাজার রাফা শহরে ইসরায়েলি সেনারা স্থল অভিযান চালালে ‘নজিরবিহীন মানবিক বিপর্যয়’ সৃষ্টি হবে বলে সতর্ক করেছেন জাতিসংঘের মানবাধিকার বিষয়ক প্রধান মার্টিন গ্রিফিথস।

মঙ্গলবার এক বিবৃতিতে তিনি বলেছেন, ‘বাস্তব সত্য হল, রাফাতে স্থল অভিযান চালানো হলে সেখানে ‘নজিরবিহীন মানবিক বিপর্যয়’ থেকে কম কিছু হবে না। তখন কোনও মানবিক পরিকল্পনাই এটিকে প্রতিহত করতে পারবে না।’
ইসরায়েলের প্রধানমন্ত্রী বেনিয়ামিন নেতানিয়াহু রাফাতে সেনা অভিযান শুরুর অঙ্গীকার করার পর গ্রিফিথস এ মন্তব্য করলেন।
রাফাতে বর্তমানে প্রায় ১৫ লাখ ফিলিস্তিনি আশ্রয় নিয়েছে।

আরও পড়ুনঃ   গাজা যুদ্ধে হেরেছে ইসরায়েল, বললেন সাবেক সেনা কমান্ডার

হামাস যখন যুক্তরাষ্ট্র, মিশর ও কাতারের মধ্যস্থতাকারীদের সঙ্গে কায়রো আলোচনায় প্রস্তাবিত একটি যুদ্ধবিরতির পরিকল্পনা করছে, তখন নেতানিয়াহু ‘একটি চুক্তিসহ বা চুক্তি ছাড়াই’ রাফাহ আক্রমণ শুরুর অঙ্গীকার করেছেন।
রাফায় সেনা অভিযান চালানো হলে সেখানে ব্যাপক বেসামরিক নাগরিকের হতাহতের আশঙ্কায় ওয়াশিংটন, অন্যান্য দেশ ও মানবাধিকার সংস্থাগুলো এ অভিযান না চালানোর জন্য ইসরায়েলের প্রতি আহ্বান জানিয়েছে।

জাতিসংঘের মানবাধিকার প্রধান বলেন, ‘আন্তজাতিক সম্প্রদায় কয়েক সপ্তাহ ধরে ইসরায়েলি কর্তৃপক্ষের কাছে রাফাকে রক্ষা করার আবেদন করছে। কিন্তু অঞ্চলটি স্থল অভিযানের দোরগোড়ায় রয়েছে।’
গ্রিফিথস আরো বলেছেন, ‘অসুখ, দুর্ভিক্ষ, গণকবর ও সম্মুখ সমর থেকে বাঁচতে গাজার দক্ষিণতম পয়েন্টে পালিয়ে আসা লক্ষাধিক মানুষের জন্য এই স্থল আক্রমণ আরও বেশি হতাহতের ঘটনা ঘটাবে।’

আরও পড়ুনঃ   প্রতিরক্ষা মন্ত্রী শোইগুকে সরিয়ে দিলেন পুতিন

হামাস নিয়ন্ত্রিত গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, গাজায় ইসরায়েলের হামলায় এ পর্যন্ত অন্তত ৩৪ হাজার ৫৩৫ জন বেসামরিক নাগরিক নিহত হয়েছে। যার অধিকাংশই নারী ও শিশু।