বিয়ের প্রথম ৬ মাসে মাত্র ২১ দিন একসঙ্গে কাটান কোহলি-আনুশকা

অনলাইন ডেস্ক : দাম্পত্য জীবনের ৫ বছর পার করলেন ভারতীয় ক্রিকেটার বিরাট কোহলি ও বলিউড অভিনেত্রী আনুশকা শর্মা জুটি। সময়ের সঙ্গে সঙ্গে এই দম্পতির সম্পর্ক মজবুত হয়েছে। নিজেদের ভালো কিংবা খারাপ সময়ে একে অপরের হাতটা ধরে রেখেছেন শক্তভাবে।

বিয়ের পর থেকেই সিনেমায় কাজ করার পরিমাণ কমিয়ে দেন আনুশকা। বর্তমানে স্বামী-সন্তানই যেন তার কাছে সবকিছুর উর্ধ্বে। সম্প্রতি তিনজনের সংসার চারজনে পরিণত হয়েছে। কোহলি, আনুশকা, ভামিকার পরিবারে যুক্ত হয়েছে ছেলে অকায়।

অন্তঃসত্ত্বা আনুশকার পাশে থাকতে ক্রিকেট থেকে বিরতি নিয়েছিলেন কোহলি। পুরো সময়টাই স্ত্রীর পাশে থেকেছেন তিনি। কিন্তু এই দম্পতি নাকি বিয়ের প্রথম ৬ মাসে একে অপরের সঙ্গেই থাকতেই পারেননি।

আরও পড়ুনঃ   বোনকে সামলান, সামনে পড়লে থাপড়াবো- বুবলীকে পরীমণি

২০১৩ সালে একটি বিজ্ঞাপনের শুটিংয়ের সময় প্রথম দেখা হয়েছিল বিরাট-আনুশকার। সে দিন থেকেই তাদের প্রেম শুরু। সম্পর্ক শুরুর পর থেকে সেই অর্থে কোনও দিনই তা গোপন করেননি দুই তারকা।

২০১৪ সালে দক্ষিণ আফ্রিকা থেকে ভারতীয় ক্রিকেট দল মুম্বাইয়ে ফেরার পরই বিরাট সোজা গিয়েছিলেন আনুশকার বাড়িতে তার সঙ্গে দেখা করতে। এরপর এই ক্রিকেটারের সঙ্গে বেশ কিছু সফরেও উড়াল দিয়েছিলেন নায়িকা। বিয়ের আগে প্রায় পাঁচ বছর সম্পর্কে ছিলেন তারা।

২০১৮ সালে ইতালিতে বিয়ে করেন এই জুটি। বিয়ের পর সুইডেনে যান মধুচন্দ্রিমায়। কিন্তু এরপরই নিজেদের প্রফেশনাল ক্যারিয়ার নিয়ে ব্যস্ত হয়ে পড়েন দুজনে। বিয়ের পর যে ছয় মাস একে অপরের সঙ্গে সবচেয়ে বেশি সময় কাটান নবদম্পতিরা, সেই সময় কোহলি-আনুশকা একে অন্যেকে সময়ই দিতে পারেননি।

আরও পড়ুনঃ   অনন্যার সঙ্গে বিচ্ছেদ, সারার প্রেমে আদিত্য!

বিয়ের প্রথম ছয় মাসে মাত্র ২১ দিন একসঙ্গে ছিলেন তারা। আনুশকা জানান, বিয়ের পর থেকেই একের পর এক ম্যাচ ছিল বিরাটের। হাতে গুনে মাত্র ২১ দিন একসঙ্গে কাঁটাতে পেরেছি। আমাদের দিনে একবেলা খাবারের সময় দেখা হতো, তবে ওই অল্প সময়টুকুই ছিল ভীষণ দামি।