জুমাতুল বিদা আজ, বায়তুল মোকাররমে মুসল্লিদের ঢল

অনলাইন ডেস্ক : পবিত্র মাহে রমজানের শেষ জুমার দিনটি সারা মুসলিম বিশ্বে জুমাতুল বিদা নামে পরিচিত। আরবিতে ‘বিদা’ শব্দের অর্থ শেষ। জুমাতুল বিদা মানে হচ্ছে শেষ শুক্রবার বা শেষ জুমা।

মূলত, আরবি ১৪৪৫ হিজরির রমজান মাসের শেষ জুমা হিসেবে আজকের দিনকে জুমাতুল বিদা বলা হচ্ছে। সে উপলক্ষ্যে জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে ঢল নেমেছে ধর্মপ্রাণ মুসল্লিদের। নির্ধারিত সময়ের আগেই কানায়-কানায় পরিপূর্ণ হয়ে গেছে মসজিদ। সড়ক পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়েছে মুসল্লিদের উপস্থিতি। একইসাথে আজ দেশের বিভিন্ন মসজিদে জুমার নামাজ শেষে দেশ-জাতি এবং মুসলিম উম্মাহর ঐক্য ও শান্তি কামনায় দোয়াও করবেন মুসল্লিরা।

শুক্রবার (৫ এপ্রিল) সরেজমিনে ঘুরে দেখা যায়, দুপুরে জুমার নামাজের আগেই বায়তুল মোকাররমে আসতে শুরু করেন মুসল্লিরা। আর আজানের সময়ই কানায় কানায় পূর্ণ হয়ে যায় মসজিদের ভেতরের এরিয়া। পরে বারান্দা এবং খোলা অংশ ছাড়িয়ে মার্কেটের ভেতরে পর্যন্ত কাতারবদ্ধ হয়ে দাঁড়ান অনেকে। অন্যরকম উৎসাহ উদ্দীপনা নিয়ে অভিভাবকদের সঙ্গে জুমা পড়তে আসেন শিশু-কিশোররাও।

আরও পড়ুনঃ   উপজেলা পরিষদ ভোট নিয়ে ইসির আন্তঃমন্ত্রণালয় সভা মঙ্গলবার

মসজিদে আসা মুসল্লিরা বলছেন, রহমত, বরকত এবং মাগফেরাতের মাস রমজান শেষ সময়ে উপনীত হয়েছে। তাই মহান আল্লাহর সান্নিধ্য লাভের উদ্দেশ্যে শেষ জুমার দিন মসজিদে আগেভাগেই এসেছেন তারা।

শরিফুল ইসলাম নামের এক মুসল্লি বলেন, মুসলিম উম্মাহর কাছে এটি একটি পবিত্র দিন। জুমাতুল বিদা রোজাদারকে স্মরণ করিয়ে দেয়, রমজানের শেষলগ্নে এর চেয়ে ভালো কোনো দিন আর পাওয়া যাবে না।
সারা বিশ্বেই পবিত্র মাহে রমজান মাসের শেষ শুক্রবার জুমাতুল বিদা হিসেবে পালন করেন মুসলিমরা। তাই একটু আগেভাগেই মসজিদে এসেছি। সাথে ছেলেকেও নিয়ে এসেছি।

আরও পড়ুনঃ   সুনির্দিষ্ট অভিযোগ ছাড়া কোরবানির পশুবাহী পরিবহন থামানো যাবে না: আইজিপি

আব্দুর রহমান নামের আরেক মুসুল্লি বলেন, রমজান মাস এমনিতেই ফজিলতপূর্ণ মাস। অন্যান্য সকল মাসের চেয়ে উত্তম। আর শুক্রবার দিনও সবার কাছে গুরুত্বপূর্ণ। ছোট-বড় সবাই উৎসবের আমেজ নিয়ে নামাজ আদায় করতে আসেন। মসজিদে নামাজ পড়ার পর আল্লাহর রহমত, মাগফিরাত, ও বরকতের জন্য দুআ করে। তাছাড়া এটি একটি বড় ধরনের সম্প্রীতির বন্ধন সুদৃঢ় করার এবং মুসলিম সমাজের ঐক্যের প্রতীক হিসাবেও বিবেচনা করা হয়।